বানান পরিবর্তন: কোন শিরোনাম খুঁজে পাইনি

বানান পরিবর্তন: বলছি তো সহজ নয়। যেই সহজের কথা বললাম, আর ওমনি ভেবে নিলেন কঠিন কিছুও নয়। তাই যদি হয়, প্রাক্টিক্যাল ফিল্ডে আসেন। হাতে-কলমে-মগজে বুঝিয়ে দিচ্ছি। চেষ্টা করব সহজ ভাষায় বোঝাতে, না পারলে নিজ দায়িত্বে বুঝে নিবেন।

৫জেলার নামের ইংরেজি বানান পরিবর্তন হচ্ছে। খুবই ভাল কথা। তবে প্রতিটি জেলার রন্ধ্রে রন্ধ্রে কিছু কিছু জায়গার বাংলা নামই যে কত ভয়ংকর তা একজন প্রকৃত(!) সাহিত্যিকের হাতে পড়লে বোঝা যায়। যেমন-বানান পরিবর্তন, কুমিল্লা,বাংলা,বরিশাল,চট্টগ্রাম,বাচ্য পরিবর্তন,ধ্বনি পরিবর্তন,ভাষা পরিবর্তন করুন,মানববন্ধন,বডি বানানোর উপায়,বাংলা সংবাদ,ব্যাকরণ,নামের বানান সংশোধন,বাংলা টিটোরিয়াল

রাত তখন ৯টা। মাইক্রোবাসে করে ‘কুত্তার গলি‘ দিয়ে বের হয়ে `বোদা`য় যাচ্ছিল সুমনরা।সাথে ছিল ‘বুড়াবুড়ি‘র দুই বুড়াবুড়ি । ‘ফকিন্নিহাট‘ এর কাছে এসে ‘সোনাখাড়া‘ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক আর ‘চুমাচুমি‘ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এর ভূগোলের শিক্ষককে তুলে নিল। ‘কালাসোনা‘র জাহিদ মাথা চুলকে বলল যে, একটু ভুল হয়ে গেছে সুমন।

বড়বাল‘ ১২ কিলোমিটার থাকতে আমাকে মনে করিয়ে দিস যে, ‘খানকির হাট‘ এর রাজুকেও সাথে নিতে হবে। তা না হলে ‘ধনকামড়া‘তে যে সাধুর কাছে যাচ্ছি, তার কাছে পাত্তা পাব না। সুমন বলল, সমস্যা নাই। কারণ ‘গলাচিপা‘র যে সাধু ‘সোনাখাড়া‘য় থাকে, তার সাথে ‘গোয়ামারি‘ আর ‘চুতমারি‘র সাধুর ভাল সম্পর্ক না থাকলেও ‘ধনখাড়া‘র সাধুর সাথে বেশ ভাল সম্পর্ক আছে। ওনাকে দিয়েই কাজ চালানো যাবে।ভূগোলের শিক্ষক বললেন, তোমরা চিন্তা কইরো না। আমার পরিচিত ‘আঙ্গুলদিয়া‘ আর ‘পুন্দেরচর‘ এর দুই নাপিতের সাথে ‘ধনকামড়া‘র সাধুরও বেশ সখ্য।

প্রধান শিক্ষক ভাবলেন যে, ‘সোনাখাড়া‘র প্রধান একজন হিসেবে তিনি যদি কিছু না বলেন তাহলে ব্যাপারটা যেন কেমন হয়ে যায়। তাই তিনি বললেন, আমি যতটুকু জানি, ওই সাধু এখন ‘ধনকামড়া‘য় থাকে না। থাকে ‘ধনতোলা‘। আরও শুনেছি যে, ‘ধনবাড়ী‘র এক ঘটকের সহায়তায় ‘পুটকিউদাম‘ এর এক পঞ্চাষোর্ধ মহিলাকে বিয়ে করে ‘দুধবাজার‘ থাকে। তবে মাঝে মাঝে ‘চুলকানী বাজার‘ এ আসে। কথা চলছেই…

‘ ‘ এই চিহ্নের মধ্যে থাকা মাননীয় বোল্ড শব্দ কোন না কোন জায়গার নাম।

আরও পড়ুন: গো+এষণা = গবেষণা

 

বলছি তো সহজ নয়। যেই সহজের কথা বললাম, আর ওমনি ভেবে নিলেন কঠিন কিছুও নয়। তাই যদি হয়, প্রাক্টিক্যাল ফিল্ডে আসেন। হাতে-কলমে-মগজে বুঝিয়ে দিচ্ছি। চেষ্টা করব সহজ ভাষায় বোঝাতে, না পারলে নিজ দায়িত্বে বুঝে নিবেন।

৫জেলার নামের ইংরেজি বানান পরিবর্তন হচ্ছে। খুবই ভাল কথা। তবে প্রতিটি জেলার রন্ধ্রে রন্ধ্রে কিছু কিছু জায়গার বাংলা নামই যে কত ভয়ংকর তা একজন প্রকৃত(!) সাহিত্যিকের হাতে পড়লে বোঝা যায়। যেমন-বানান পরিবর্তন, কুমিল্লা,বাংলা,বরিশাল,চট্টগ্রাম,বাচ্য পরিবর্তন,ধ্বনি পরিবর্তন,ভাষা পরিবর্তন করুন,মানববন্ধন,বডি বানানোর উপায়,বাংলা সংবাদ,ব্যাকরণ,নামের বানান সংশোধন,বাংলা টিটোরিয়াল

রাত তখন ৯টা। মাইক্রোবাসে করে ‘কুত্তার গলি‘ দিয়ে বের হয়ে `বোদা`য় যাচ্ছিল সুমনরা।সাথে ছিল ‘বুড়াবুড়ি‘র দুই বুড়াবুড়ি । ‘ফকিন্নিহাট‘ এর কাছে এসে ‘সোনাখাড়া‘ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক আর ‘চুমাচুমি‘ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এর ভূগোলের শিক্ষককে তুলে নিল। ‘কালাসোনা‘র জাহিদ মাথা চুলকে বলল যে, একটু ভুল হয়ে গেছে সুমন।

বড়বাল‘ ১২ কিলোমিটার থাকতে আমাকে মনে করিয়ে দিস যে, ‘খানকির হাট‘ এর রাজুকেও সাথে নিতে হবে। তা না হলে ‘ধনকামড়া‘তে যে সাধুর কাছে যাচ্ছি, তার কাছে পাত্তা পাব না। সুমন বলল, সমস্যা নাই। কারণ ‘গলাচিপা‘র যে সাধু ‘সোনাখাড়া‘য় থাকে, তার সাথে ‘গোয়ামারি‘ আর ‘চুতমারি‘র সাধুর ভাল সম্পর্ক না থাকলেও ‘ধনখাড়া‘র সাধুর সাথে বেশ ভাল সম্পর্ক আছে। ওনাকে দিয়েই কাজ চালানো যাবে।ভূগোলের শিক্ষক বললেন, তোমরা চিন্তা কইরো না। আমার পরিচিত ‘আঙ্গুলদিয়া‘ আর ‘পুন্দেরচর‘ এর দুই নাপিতের সাথে ‘ধনকামড়া‘র সাধুরও বেশ সখ্য।

প্রধান শিক্ষক ভাবলেন যে, ‘সোনাখাড়া‘র প্রধান একজন হিসেবে তিনি যদি কিছু না বলেন তাহলে ব্যাপারটা যেন কেমন হয়ে যায়। তাই তিনি বললেন, আমি যতটুকু জানি, ওই সাধু এখন ‘ধনকামড়া‘য় থাকে না। থাকে ‘ধনতোলা‘। আরও শুনেছি যে, ‘ধনবাড়ী‘র এক ঘটকের সহায়তায় ‘পুটকিউদাম‘ এর এক পঞ্চাষোর্ধ মহিলাকে বিয়ে করে ‘দুধবাজার‘ থাকে। তবে মাঝে মাঝে ‘চুলকানী বাজার‘ এ আসে। কথা চলছেই…

‘ ‘ এই চিহ্নের মধ্যে থাকা মাননীয় বোল্ড শব্দ কোন না কোন জায়গার নাম।

আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করতে ফেসবুক আইকনে ক্লিক করুনঃ
Updated: April 30, 2019 — 4:56 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published.