Combined 5 bank Officer Viva Preparation

Combined 5 bank Officer Viva এর জন্য নির্বাচিত সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা।নিচের লেখাটি Combined 5 bank Officer Viva নিয়ে লেখা হলেও যেকোন  ভাইভার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

Combined 5 bank Officer Viva এর রিটেনের রেজাল্ট সম্প্রতি প্রকাশ হয়ে গেছে। সামনে এসে দাড়িয়েছে মূর্তিমান আতঙ্ক- কোমল হৃদয়ে ধুকপুকানি – ভাইভাতঙ্ক। জলাতঙ্কের মতই একটা ব্যাপার। এই বাধাটা পেরিয়ে গেলেই উদার আকাশের নিচে নিজের একটা ভিন্ন পরিচয় তৈরি হয়। অনেক দু:স্বপ্নের আধার রাত পেরিয়ে সকালের সোনারোদে বুক ভরে নি:শ্বাস নেয়া যায়। ‘বেলা’ তোমাকে ভালবাসি বলে চিৎকার করা যায়। ‘বেলা’র জায়গাটা ফাঁকা রাখা যায়, যাতে সিস্টেমে নতুন কোন বেলা বোস ফোঁস করে উঠতে পারে।

Combined 5 bank Officer Viva শুরু হবে ৩১/১০/২০১৮ থেকে এবং শেষ হবে ২১/০১/২০১৯ তারিখে। Combined 5 bank Officer এর রিটেনে পাশ করেছেন ৭৯৪২ জন; পোস্ট খালি আছে ২৫৭৪টি। যা নিম্নরূপে বণ্টিত:

ক্রমিকব্যাংকপোস্ট
01SBL363
02BDBL18
03BKB1722
04RAKUB455
05ICB16

সর্বমোট

2574

অর্থাৎ Combined 5 bank Officer Viva থেকে প্রতি ৩ জনে ১জন চাকরিটা পাবে। এই ১ জনটা আপনি কি-না তা নির্ভর করছে আপনার রিটেনে প্রাপ্ত নম্বর ও আপনি ভাইভাতে কেমন করলেন তার যোগফলের উপর। তবে আশার কথা এই যে, আমার জানামতে ব্যাংকের ভা্ইভাতে ফেল করানোর কোন নজির নাই। আপনি কিছু না পারলেও পাশ মার্কস পাবেন। অর্থাৎ আপনার চাকরির নিশ্চয়তা কিন্তু আপনার হাতেই। রিটেনে কেমন কামালেন!

এই পোস্টে Combined 5 bank Officer Viva এর জন্য আমার ভাষায় প্রারম্ভিক কিছু বিষয় এবং আপনার প্রিপারেশন কত ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে নিতে হবে, কি কি পড়বেন- সে বিষয়ে আলোচনা করব। তবে যারা ভাইভা দিতে দিতে ডক্টরেট করে ফেলেছেন তাদের কাছে এই লেখার মূল্য টিস্যুপেপারের মূল্যের সমান।

Combined 5 bank Officer Viva Preparation: একটা ছোটগল্প

Combined 5 bank Officer Viva বা যেকোন চাকরির ভাইভার সাথে ইলিশ মাছ কেনার একটা গভীর সম্পর্ক আজ অফিসে আসার সময় খুজে পেয়েছি। মনে করুন, আপনার বাসার চেয়ারম্যান মানে আপনার একমাত্র বউ আপনাকে বলে দিয়েছে যে, আজ আসার সময় ভাল দেখে একটা ইলিশ মাছ নিয়ে এসো। না আনলে তোমার গুষ্ঠীর ষষ্টি পুজো করে ছেড়ে দেব। আপনি নিরুপায়। বাজারে গিয়ে মাছ কেনার সময় মাছের কানকো উল্টে-পাল্টে, ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে, চেহারা ঝকঝকে দেখে, মাছের পেট টিপে-টুপে একাকার করে ৯২৫ গ্রাম ওজনের একটি মাছ কিনে নিলেন। মাছ দেখে বউ খুশি। আপনার ঘরে সুখের সাইক্লোন।

ঠিক এইখানটাতেই ভাইভার প্রসঙ্গ এসে পড়ে। আপনি যেমন মাছের ভাইভা নিলেন ঠিক তেমনি ভাইভাতে আপনাকে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে, উল্টে-পাল্টে একটু দেখে নিবে যে, কোন প্রকৃতির মাল ৫টি ব্যাংকে গছিয়ে দিচ্ছে। এর বেশি আর কিছু না। আপনি যদি মোটামুটিভাবে উৎরে যেতে পারেন আর রিটেনে একটা হ্যান্ডসাম মার্কস পেয়ে থাকেন, তাহলে দু’কেজি মিষ্টি কিনে নিয়ে বাড়ি যেতে পারেন। 

Combined 5 bank Officer Viva Preparation: প্রশ্নকর্তা অনেক কিছুই জানেন না

Combined 5 bank Officer Viva দিতে গিয়ে দেখবেন যে, প্রশ্নকর্তা তেমন কিছুই জানে না। আপনাকে প্রশ্ন করে জেনে নিচ্ছে। পড়াশোনা কম থাকলে যা হয় আরকি। যেমন- আপনার নাম, আপনার home district, last degree ইত্যাদি।  এছাড়াও ব্যাংক বিষয়ক কিছু ব্যাসিক প্রশ্ন(পরবর্তী পোস্টে দেয়া হবে) যা প্রশ্নকর্তা জানে(!) না, তা আপনার কাছ থেকে কৌশলে জেনে নিবে।

Combined 5 bank Officer Viva Preparation: সমস্যা

আসলে ভাইভার প্রিপারেশনের কোন শেষ নাই। আর ভাইভা বোর্ডে আপনাকে যা খুশি তাই জিজ্ঞেস করতে পারে। কোন সিলেবাস নাই। মনে করুন আপনি দুই হাজার হাই ভোল্টেজ প্রশ্ন-উত্তর মুখস্ত-ঠোটস্থ-ব্রেনেস্থ করে ভাইভা বোর্ডে  হাজির। পৃথিবীর ওজন আপনি নিজের হাতে মেপে বলে দেয়ার ক্ষমতা রাখেন। কিন্তু বোর্ডে অাপনাকে শুধু নাম, পিতার নাম, কয় ভাই-বোন ইত্যাদি জিজ্ঞেস করে ছেড়ে দিতে পারে। আবার, এমনভাবে কোপাইতে পারে যে, আপনি প্যান্ট ভিজিয়ে ফেলবেন। উভয়ক্ষেত্রেই আপনার চাকরি হতেও পারে, আবার নাও পারে। এটা একটা সমস্যা। তবে আপনার Attitude একটা ফ্যাক্টর। ভয় করলেই ভয়, হাত দিলে কিছু না- গল্পটা জানেন নিশ্চয়ই!!!

Combined 5 bank Officer Viva Preparation: কিছু কমন প্রশ্ন

Combined 5 bank Officer Viva সহ অন্যান্য ব্যাংকের ভাইভাতে কিছু কমন প্রশ্ন যা আপনাকে করবেই তা হচ্ছে,-

১। আপনার নাম;

২। আপনার জেলা;

৩। Introduce yourself;

৪। কোন বিষয়ে থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন;

৫। ব্যাংকের সাথে আপনার পঠিত বিষয়ের সম্পর্ক কী(বায়োলজির ছাত্রের সাথে ব্যাংকের সম্পর্ক হচ্ছে- তিনদিন ধরে গ্যাস নাই। তাই অঞ্জনদা’র বয়স ২৯ বছর!!!); 

৬। আপনার ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যানের নাম, অনুষদের ডিনের নাম ইত্যাদি;

৬। আপনার ক্যারিয়ার Objective কী;

৭। কেন আপনি ব্যাংকে আসতে চান;

৪। আপনার জেলার বিখ্যাত ব্যাক্তিত্ব;

৫। আপনার জেলায় কোন কোন ব্যাংকের শাখা আছে;

ইত্যাদি।

তাই এ সম্পর্কিত তথ্যগুলো ভালভাবে মাথায় গেথে রাখুন।

আর যেহেতু এটা Combined 5 bank Officer Viva, তাই চয়েজকেন্দ্রিক কিছু কমন প্রশ্ন নিম্নরূপে হতে পারে:

১। আপনি কেন *** ব্যাংককে প্রথম চয়েস দিয়েছেন;

২। চয়েসের প্রথমটা সম্পর্কে কিছু ব্যাসিক প্রশ্ন। যেমন- কতসালে প্রতিষ্ঠিত হয়, চেয়াম্যানের নাম; শাখার সংখ্যা; ক্যাপিটাল ইত্যাদি(এ সম্পর্কিত তথ্য সম্বলিত পোস্ট পরবর্তীতে দেয়া হবে);

২।  আপনাকে যদি *** (ব্যাংকের নাম) এর ***(শাখার নাম- যেটা (আপনার জেলা থেকে সবথেকে দূরে অবস্থিত) শাখায় ট্রান্সফার করা হয় তাহলে আপনি কি চাকরিটা করবেন;

৩। কেন করবেন;

আর থাকবে ব্যাংক সম্পর্কিত কিছু ব্যাসিক প্রশ্ন। এজন্য বাজারের যেকোন একটা ভাইভা বই দেখতে পারেন। 

Combined 5 bank Officer Viva Preparation: পোষাক-পরিচ্ছদ

এটা একটা কমন প্রশ্ন যে, ভাইভাতে কোন ধরণের পোষাক পরা উচিত। উত্তরটা Simple এর মধ্যে খুবই সাধারণ। টি-শার্ট বাদে আপনি কমফোর্ট ফিল করেন এরকম যেকোন পোষাকই এনাফ। আপনি সাদা বা অ্যাশ কালারের শার্ট এবং কালো প্যান্ট(আন্ডারওয়্যারসহ) না পরলে এজন্মে আপনার চাকরি হবে না – ব্যাপারটা আসলে তা নয়। দেখতে খারাপ লাগে না, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন যেকোন ম্যাচিং পোষাকই এনাফ। ইন করে পরতে হবে। টাই পরতেই হবে- এমন কোন কথা নেই। তবে গলায় টাই থাকলে একটা ভাব, একটা লুক আসে। চাই কি ওয়েটিংরুমে কোন রমণীর নজরকাঁড়া দৃষ্টির হুকে আটকে যেতে পারেন। রাজ্যের কামলা(নিয়োগ)পত্র ও রাজকন্যা দুটোই মিলে যেতে পারে।  

Combined 5 bank Officer Viva: কিভাবে উত্তর করবেন

নিজেকে যথা সম্ভব সংযত রেখে ধীরস্থিরভাবে এবং রোবোটিক নয়, সাধারণ স্বরে প্রশ্নকর্তার অজানা উত্তরটি আপনি দিয়ে দিন। নিজেকে প্রকাশ করুন সাবলীলভাবে। আপনার সামনে যারা বসে থাকবেন তাঁরা অবশ্যই জ্ঞানীলোক। কেউ বাঘ বা ভাল্লুক নয়, তবে আপনার বন্ধুও নয় যে বলবেন, কি রে দোস্‌ খবর কী? আপনার স্বাভাবিক আচরণ আর পরিষ্কার জ্ঞানই আপনার একমাত্র ঢাল।

ক। অনুমতি নিয়ে কক্ষে প্রবেশ করে সালাম জানান। বসতে বললে আপনার জন্য নির্ধারিত চেয়ারে বসুন। বসতে না বললে একটু অপেক্ষা করে অনুমতি নিয়ে চেয়ারটা দখল করে নিন। ধন্যবাদ জানান। ভাইভা যারা নিবেন তাদের দিকে বন্ধুর দুইখান চোখ, যেন দুইনলা বন্দুক – এর মত সোজাসুজি তাকান। মাটির দিকে পিপড়ার যাতায়াত বা ঘরের কোণ বা ছাদের দিকে তাকিয়ে পিথাগোরাসের জ্যামিতি করার দরকার নাই। টেনশন স্বাভাবিক। তাই, যারা বিড়ি-সিগারেট পান করেন, তারা দয়া করে চকলেট/আদা/এলাচ/লবঙ্গ ইত্যাদির যে কোনটা একটু মুখে দিয়ে যাবেন।

খ। মনোযোগ দিয়ে প্রথমে প্রশ্নটি শুনুন ও বোঝার চেষ্টা করুন। প্রথমবারে যদি প্রশ্নটি বুঝতে না পারেন তবে বিনয়ের সাথে প্রশ্নটি রিপিট করতে বলুন।

গ। একজন প্রশ্নকর্তার প্রশ্নের উত্তর দেয়ার সময় রোবটের মত শুধু তার থ্যাবড়া নাকের দিকে না তাকিয়ে  অন্যদের দিকেও আপনার সদয় দৃষ্টি দিতে ভুলবেন না। অতি সুকৌশলে নিজের বুদ্ধিমত্তা, উত্তম গুনাবলী ও জ্ঞানের পরিধি সম্পর্কে পরীক্ষকগনকে বুঝিয়ে দিন যে আপনি কী জিনিস! উত্তর দেয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন কোন ব্যক্তি, সমষ্টি, জাতি, ধর্ম বা রাষ্ট্র সম্পর্কে কোন প্রকার অবমাননাকর বা অপ্রীতিকর কথা বেয়িয়ে না যায়। বন্দুকের গুলি আর মুখ থেকে বেরিয়ে যাওয়া বুলি বিক্রীত পণ্যের মত। ফেরত হয় না। তাই, গতস্য শোচনা নাস্তি!!!

ঘ। উত্তর দেয়ার সময় প্রত্যেকটি শব্দ স্পষ্ট করে এমনভাবে উচ্চারন করুন যেন সবাই শুনতে পায়। To the point এ উত্তর দিন। বেশি জ্ঞান জাহির করতে গেলে চোখের জল নাকের জল এক হয়ে যাবে। উত্তর জানা না থাকলে বলুন, “দুঃখিত আমার জানা নেই”। অগোছালো ভাবে এদিক সেদিক না ঘুরিয়ে যথাযথ উত্তর দেয়ার চেষ্টা করুন। সবাই যে সবকিছু জানবে – এমন কোন কথা নাই। ভাইভা বোর্ডের সদস্যগণও যে সব জানেন- এমন নয়। আপনি তাদের ১০ মার্কসের একটা পরীক্ষা নিন ২.৫ও পাবে না- এমন অনেককেই পাবেন। তবে যেহেতু তিনি টেবিলের ওপাশে আছেন, তাই ঘটনা ভিন্ন। তবে তাঁরা কেউ আপনাকে আটকানোর জন্য বসে নেই। আটকানোর জন্য আপনার অগভীর, অগোছালো জ্ঞানই যথেষ্ট। আপনি একটা প্রশ্নেরও সঠিক জবাব না দিয়েও ভাইভা ভাল করতে পারেন।

ঙ। সদ্য ছ্যাকা খেয়েছেন- মুখটাকে এরকম করে রাখবেন না। আপনি একজন পাক্কা অভিনেতা। জীবনের রঙ্গমঞ্চে তো অভিনয় করেই চলেছেন। আর একটু করুন। নিজেকে হাসি হাসি মুখ করে রাখুন। কোন প্রশ্নের উত্তরে নিয়োগকর্তার বিরুদ্ধ মত জানানোর আগে বিনয়ের সাথে বলবেন- মাফ করবেন স্যার বা কিছু মনে করবেন না স্যার – বলে নিন। উঁচু গলায় প্রশ্ন এলেও যেমন বুনো ওল, তেমন বাঘা তেঁতুলের মত উচু গলায় উত্তর দেয়া যাবে না। স্বাভাবিক স্বরে উত্তর দিন।

চ। মুদ্রাদোষগুলো সম্পর্কে অত্যন্ত সচেতন থাকুন। চুল ঠিক করা, গোঁফে হাত বুলানো, টাই ঠিক করা, নাক চুলকানো, গলা দিয়ে শব্দ করা বা জামা কাপড় ঠিক করা – এগুলো আজ থেকেই ছেড়ে দিন। পরীক্ষকগণের কেউ যদি হ্যান্ডশেক করার জন্য আগে হাত বাড়ায়, কেবল তখনই আপনার দামী হাতখানা বাড়িয়ে দিন। নচেৎ কদ্যপি নয়। গায়ের জোর দেখানোর জন্য কষে টাইট করে হাতে চাপ দিবেন না। মনে রাখবেন তাঁদের বয়স মোটামুটিভাবে ৫০ এর উপরে। মোলায়েম ভাবে করর্মদন করুন।

ছ। পরিশেষে, বিদায় নেবার সময় সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সালাম দিয়ে পগার পার হয়ে যান।

রিল্যাক্স থাকুন। প্রিপারেশন নিন জোরসে। 

Bank BCS Preliminary Preparation : একই সাথে

5 Bank Combined Officer Preli Exam 2018: Solution

5 bank combined officer written question 2018 : Arts Faculty

আপনার যে কোন প্রয়োজনে, চাকরির সার্কুলার ও আপডেট, এক্সাম ডেট, আপনার কোন কিছু জানার থাকলে নির্দ্বিধায় যোগদান করুন একঝাঁক প্রাণোচ্ছল তরুণের ফেসবুক গ্রুপ: BCS Limelight এ।

ফেসবুক বাটনে ক্লিক করে Combined 5 bank Officer Viva কে আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করে রাখুন।কষ্ট করে খুজতে হবে না। Notification অন করে রাখুন। নতুন পোস্ট এমনিতেই আপনার কাছে পৌছে যাবে।

আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করতে ফেসবুক আইকনে ক্লিক করুনঃ
Updated: September 26, 2019 — 12:33 am

2 Comments

Add a Comment
  1. thank you dada..Apnar lekhai asolei onk rosh ache jotokkhon pori totokkhon e valo lage..

  2. Thanks Dada 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *